17.1 C
New York
May 31, 2020
Alorkantho24.com
বিজ্ঞান-প্রযুক্তি

করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম

স্বর্ণালী প্রিয়া ডেক্সঃকরোনা ভাইরাসের কারণে প্রতিদিনের জীবন ব্যাহত হচ্ছে।বিশ্ব জুড়ে উদ্বেগ ও মৃত্যুর আতঙ্কের মধ্যে অনেকটা আগুনে ঘি ঢালার মতো কাজ করছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা।সেখানে সামাজিক মাধ্যমে সরব হয়ে উঠেছে মানুষ।ছড়িয়ে পড়ছে আতঙ্ক, দেখা মিলছে ফেইক নিউজ, হস্যাত্মক ভিডিও ও ছবি। পূর্বের তুলোনায় এ মাধ্যমে যোগাযোগ বেড়েছে কয়েকগুন। আবার কেউ কেউ ত্রানের নামে ফটোসেশনে মত্ত হয়ে উঠেছেন।

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পেছনে সব কারণকে দায়ী করার পাশাপাশি, চিকিৎসা পদ্ধতি সম্পর্কে প্রকাশ করা হচ্ছে অসংখ্য ভুয়া সংবাদ। এমনকি বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা সরকার ঘোষিত তথ্যের চেয়েও বেশি বলে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন কেউ কেউ। কেউ আবার চিকিৎসকদের নামে রটাচ্ছেন মিথ্যে সংবাদ।

সামাজিক মাধ্যমে এ গুজব ছড়িয়ে পড়া নিয়ে উদ্বিগ্ন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, এ ধরণের ফেইক নিউজ, ভিডিও ভাইরাসের চেয়েও ক্ষতিকর।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা ধরনের গুজব ছড়ানো হচ্ছে।এতে এ ধরনের প্রচারে কান না দেয়ার আহ্বান জানান আইইডিসিআরের পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। এক্ষেত্রে উদ্বিগ্ন না হয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

গুজবে আতঙ্কই নয়,করোনা ভাইরাসকে করব জয়।করোনাকে কেউ কেউ হাস্যাত্মকভাবেও উপস্থাপন করছেন। টিকটক ভিডিও ও ছবি প্রকাশ করে এটি নিয়ে অনেকটা অবহেলাই করছেন তারা। ঘরে বন্দি থেকে কে কি করছেন তা প্রতি মুহূর্তে প্রকাশ করছেন উদ্ভট ভঙ্গিতে।

করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু গুজব ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। কোথাও বলা হচ্ছে, রসুন, লবঙ্গ, আদাজল খেলে করোনা ভাইরাস ভালো হয়। এ নিয়ে অনেকে বিভিন্ন ওষুধের বিজ্ঞাপনও প্রচার করছেন। যেগুলোর কোন বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই।

এসব গুজবের কারণে মানুষ যেমন আতঙ্কিত হয়ে পড়বে তেমনি ভুল চিকিৎসার দিকে ধাবিত হয়ে আরও বিপদ ডেকে আনতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে।দেশের বৃহৎ অংশের শ্রেনীর মানুষ উপার্জনহীন হয়ে পড়ায় থেমে গেছে নিম্ন আয়ের মানুষের জীবনের চাকা। নিভে গেছে তাদের রান্নার চুলা। ক্ষুধার্ত এ মানুষগুলোর বাড়ী বাড়ী সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়ার ঘোষনা থাকলেও নেতার সাথে সমাগম হয়ে মানুষের বাড়ী বাড়ী খাদ্য সহায়তার প্যাকেজ নিয়ে ক্ষুধার্ত মানুষগুলোকে ইচ্ছের বিরুদ্ধে দাড় করিয়ে এক শ্রেনীর সেলফিবাজরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেতার পক্ষে ত্রান বিতরনের প্রচার চালাচ্ছে। ফেসবুক খুললেই ক্ষুধার্ত মানুষদের সাথে নেতার অনুসারীদের ছবি দেখা যাচ্ছে, একটি খাদ্য প্যাকেজ বিতরন করতে দেখা যাচ্ছে ১০-১৫জনকে। শুধু নেতারাই নয়, এমন কাণ্ড দেশের অনেককেই করতে দেখা যাচ্ছে।

Related posts

করোনা প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় ৭ হাজার টাকায় ভেন্টিলেটর তৈরি

editor

Amazon’s Facial Recognition Wrongly Identifies 28 Lawmakers, A.C.L.U. Says

Titu Tutul

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে দেশে ইন্টারনেটের ব্যবহার বেড়েছে

editor

পৃথিবী থেকে ২৯ ফেব্রুয়ারি দিনটা যেদিন মুছে যাবে.

editor

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসের সম্ভাব্য ভ্যাকসিন পাওয়া গেলো

editor

চিকিৎসাকর্মীদের কৃতজ্ঞতা জানিয়ে গুগলের ডুডল

editor

Leave a Comment