ব্রেকিং নিউজ » ঝাঁকে ঝাঁকে রুপালি ইলিশ জেলেপল্লীতে আনন্দের বন্যা ফিশারিঘাটে ইলিশ উৎসব,

সায়মন শাহদাত / এস আহমেদ ডেক্স প্রতিবেদনঃ আজ শুক্রবার, ০৪ সেপ্টেম্বর গত দু দিন সরজমিন ঘুরে দেখা, চট্টগ্রামে জেলেদের জালে ধরা পড়ছে ঝাঁকে ঝাঁকে রুপালি ইলিশ। অন্যান্য বছরের চেয়ে এ বছর বেশি পরিমাণে ইলিশ ধরা পড়ছে বলে জানিয়েছেন জেলেরা। ইলিশের প্রজননের সময় ধরা বন্ধ রাখায় এখন সাগরে প্রচুর ইলিশ মিলছে।চট্টগ্রামের ফিশারিঘাটসহ দেশের বিভিন্ন উপকূলীয় ঘাটে বড় ইলিশের ছড়াছড়ি। একইসঙ্গে সীতাকুণ্ডের সমুদ্র উপকূলের জেলেপল্লীগুলোতে উৎসবের আমেজ চলছে বলে জানা যায়। এসব ঘাটগুলোতে প্রচুর বড় রূপালি ইলিশ আসছে। সাগরপার থেকেও ক্রেতারা কিনে নিয়ে যাচ্ছেন বড় বড় ইলিশ। নগরীর কাট্টলী ও ফিশারিঘাটে জেলেরা ১ কেজির উপরের প্রতি মণ ইলিশ বিক্রি করছেন ২৬-৩২হাজার টাকায়। আর ১ কেজির নিচের মাছ বিক্রি হচ্ছে প্রতি মণ ২২-২৩ হাজার টাকায়। খুচরা বাজারে ২ কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৮০০ টাকা এক কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৬০০ টাকা দরে। একাধিক জেলে জানান, দীর্ঘ ৬৫ দিন ইলিশ ধরা বন্ধ ছিল। এ সময় কোনো জেলেই মাছ শিকারে যাননি। ২৩ জুলাই রাত থেকে মাছ শিকার শুরু হয়েছে। প্রথম থেকেই জেলেদের জালে বড় বড় ইলিশ ধরা পড়ছে
এতে ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়ে খুশি। জেলেরা জানান, গত ৫-৬ দিন ধরে সন্দ্বীপ উপকূলসহ সাগরের বিভিন্ন পয়েন্টে ইলিশ ধরা পড়ছে। খবর পেয়ে শত শত জেলে নৌকা ও জাল নিয়ে ইলিশ শিকারে নেমে পড়েছেন। নগরীর ফিশারিঘাট ও রাসমণিঘাটে প্রতিদিন ভিড়ছে ইলিশ বোঝাই শত শত নৌকা-ট্রলার। জেলেপল্লীতে আনন্দের বন্যা বইছে। গভীর সমুদ্রে জেলেদের জালে ঝাঁকে ঝাঁকে রুপালি ইলিশ ধরা পড়ায় চট্টগ্রামের ১০ হাজার জেলে পরিবারের মুখে এখন হাসি। তবে এত ইলিশ ধরা পড়লেও বাজারে ইলিশের দাম এখনও সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে। কবি সাংবাদিক কামরুল হাসান বাদল জানান এখন ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ধরা পড়েছে। এটি দেশের অর্থনীতির জন্য বিরাট একটি অবদান। এতে জেলেরা উপকৃত হচ্ছেন। জেলে পরিবারগুলোকে সরকার সহায়তা দিয়ে জাটকা নিধনে নিরুৎসাহিত করার সুফল মিলছে। বহু বছর পর চট্টগ্রামের মাছের বাজারে দেড় দুই কেজি ওজনের ইলিশ দেখা যাচ্ছে। নগরীর হালিশহর, আনন্দবাজার, জেলেপাড়া ও জেলার উপকূলীয় উপজেলা সীতাকুণ্ড, বাঁশখালী, আনোয়ারা, সন্দ্বীপ ও মিরসরাইয়ের প্রায় ১০ হাজারের বেশি জেলে পরিবারের জীবন-জীবিকা সাগরে মাছ ধরা ও বেচাবিক্রির ওপর নির্ভরশীল। মৎস্য ব্যবসায়ী তোষাণ দাশ জানান, মাছ ধরার শুরুর দিন থেকে সাগরে জেলেদের জালে প্রচুর ইলিশ পড়ছে।