এম. এ. মান্নান একজন নির্লোভ ও নিরহংকারী রাজনীতিক ও ‘কর্মী সৃষ্টির কারিগর ছিলেন

আজ সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) জাতির জনক বঙ্গবন্ধু সরকারের মন্ত্রী মরহুম এম এ মান্নানের ১১ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভা চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, এম. এ. মান্নান একজন নির্লোভ ও নিরহংকারী রাজনীতিক ছিলেন। এম. এ. মান্নানকে খুব কাছ থেকে দেখেছি রাজনীতিতে তিনি সুদক্ষ কর্মী গঠনে সর্বদা নিজেকে নিয়োজিত রাখতেন। যেকোনো সংকটে নেতাকর্মীদের সংগঠিত করার গুণ ছিল তার। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদেরকে এম এ মান্নানের জীবনাদর্শ থেকে শিক্ষা নিতে হবে।

মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বক্তব্যে বলেন, এম. এ. মান্নান একজন শুদ্ধাচারী রাজনৈতিক ছিলেন। তিনি ছিলেন রাজনীতিতে সৃজনশীল কর্মী সৃষ্টির কারিগর। তাঁর আদর্শিক দায়বদ্ধতা আমাদেরকে প্রকৃত রাজনীতি হিসেবে গড়ে ওঠার প্রেরণা যুগিয়েছে। এম. এ. মান্নানের মত ত্যাগী নেতার আজ অনেক অভাব।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সভায় চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম. রেজাউল করিম চৌধুরী, এম.এ. রশিদ, বাগমনিরাম ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দীন।

সভায় চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এড. সুনীল কুমার সরকার, চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, উপদেষ্টা শফর আলী, শেখ মোহাম্মদ ইসহাক, মহানগর আওয়ামী লীগের সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, সৈয়দ হাসান মাহমুদ শমসের, এড. শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, হাজী মোহাম্মদ হোসেন, হাজী জহুর আহমদ, দিদারুল আলম চৌধুরী, আবদুল আহাদ, মো. আবু তাহের, ডা. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী, হাজী শহীদুল আলম, বেলাল আহমদ সহ নগর আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন ওয়ার্ড, থানা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।