নতুন সূচিতে হচ্ছে শ্রীলঙ্কা সফর

 

আজ শনিবার(২৬সেপ্টেম্বর)বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে কম জলঘোলা হচ্ছে না। লঙ্কান সরকারের অনড় সিদ্ধান্তে টাইগারদের শ্রীলঙ্কা সফর যে আগের সূচিতে হচ্ছে না।শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের মধ্যকার তিন ম্যাচ সিরিজের টেস্ট হচ্ছে। তবে নির্ধারিত সময়ে না হলেও প্রায় এক মাস পিছিয়ে যাচ্ছে। কেননা পুরোনো সূচি বদলে নতুন সূচি অনুযায়ী ডোমিঙ্গো শিষ্যরা দেশ ছাড়বে অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে। 

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) অপারেশন্স চেয়ারম্যান বলেন,আগামী দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে জানা যাবে পরবর্তী সিদ্ধান্ত। ইতিবাচক সিদ্ধান্ত আসলে অক্টোবরের ৭ থেকে ১০ তারিখের মধ্যে উড়াল দিতে পারে ক্রিকেটাররা।

কোচ, নির্বাচক, প্রধান নির্বাহীর সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেছি আজ। খেলোয়াড়দের তিন দিনের বিরতি দিয়েছি। হয়তো আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে শ্রীলঙ্কা সফরের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত পাবো। যেহেতু আমাদের সফর পিছিয়ে যাচ্ছে, তাই আমাদের হাতে এখন কিছুদিন সময় আছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা থেকে সর্বশেষ বলেছে যে, এটা ওদের হাতে নেই, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ব্যাপার।  ওরা আশা করেছিল মন্ত্রণালয় কোনো খবর দিবে। কিন্তু সেটা পাওয়া যায়নি। আশা করছি আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে আমাদেরকে ওরা জানতে পারবে। ওরা চাচ্ছে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব গাইডলাইন সব ঠিক করে ফেলতে। সোমবার বা মঙ্গলবারে হয়তো আবার কিছু জানাবে।’

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট ও বিসিবির মতের মিল যদি এবার হয়ে যায় তাহলে আর বেশি দেরি করতে হবে না ক্রিকেটারদের। অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহেই সাগরপাড়ের দেশটিতে উড়াল দিতে পারেন তামিম-মোমিনুল-মুশফিকরা।

শ্রীলঙ্কার শর্ত না মানলে বাংলাদেশের সফরটি করার দরকার নেই- এমন কথা বলেছে শ্রীলঙ্কা। তবে আকরাম খান জানালেন, এমন কোনো তথ্য তারা পাননি।

তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ধরনের কোনো তথ্য আসেনি। বাইরে কী হচ্ছে না হচ্ছে এটা নিয়ে আমরা কিছু করতে পারব না। ব্যাপারটা হলো- আমাদেরও সময় আছে, ওদেরও আছে। ওরা বারবার অনুরোধ করছে, আমরা কিছুদিনের মধ্যে জানাবো। এমন না যে ওরা চাচ্ছে না, আর আমরা জোর করছি। আমরা ওভাবে যেতে চাইলে ওদের শর্ত মেনেই চলে যেতাম।’