চট্রগ্রামে শীতকালীন শাক-সবজির দাম আকাশচুম্বি

আজ রোববার প্রকৃতির শীত রান্নাঘরেও একধরনের পরিবর্তন নিয়ে আসে। স্বাদ পাল্টাতে খাবারের তালিকার বড় একটা অংশ দখল করে রাখে শীতকালীন সবজি। তবে চলতি মৌসুমে সবজির বাজারদর সে তালিকা যেন অনেকটাই আঁটসাঁট করে ফেলেছে।
আমদানি করা আদার দাম কেজিপ্রতি ২০ থেকে ৫০ টাকা বেড়ে এখন বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২৫০ টাকায়। তবে দেশি আদা ১২০ থেকে ১৫০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে।
প্রায় সব ধরনের সবজির কেজি ৬০ টাকার আশপাশে বিক্রি হচ্ছে। কোনটির দাম ১০০ টাকার কাছাকাছি। কিছু শীতকালীন সবজি বাজারে প্রচুর তবু দাম চড়া। সবজির এই চড়া দামের মধ্যে নতুন করে দাম বেড়েছে চাউল ব্রয়লার মুরগি, আদা ও রসুনের। নিত্যপ্রয়োজনীয় এসব পণ্যের এই উচ্চমূল্য ভোক্তা সাধারণকে ভীষণ বিপাকে ফেলেছে।দফায় দফায় দাম বাড়ছে আদার।
এছাড়া সব ধরনের সবজির দামও আকাশচুম্বি।তবে পণ্যের উচ্চ মূল্য সম্পর্কে বরাবরের মতেই কিছু খোঁড়া যুক্তি দাঁড় করিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। বন্যা ও বৃষ্টির কারণে বিপুল পরিমাণ সবজি নষ্ট হয়েছে। বন্যার কারণে নতুন করে সবজি চাষ করা যাচ্ছে না। যেসব এলাকায় বন্যা হয়নি সেখানে অতিবৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে সবজির। এসব কারণে দাম বাড়ছে।তবে আশার খবর হলো,নাভিশ্বাস তোলা পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে।আবার
বিক্রেতারা বলছেন, সরবরাহ কম থাকায় মৌসুমের শুরুতেই সবজির দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দামের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে না পেরে চাহিদার থেকেও কম পণ্য কিনে বাড়ি ফিরছেন নিম্ন ও মধ্যম আয়ের ক্রেতারা।