ব্রেকিং নিউজ » »তীব্র যানজটের কবলে কোরবাণীগঞ্জ ও খাতুনগঞ্জ এলাকা

 

আজ বুধবার(২৫ নভেম্বর) সকাল থেকেই চট্টগ্রামে যানজটের ভোগান্তি থেকে রেহায় মিলছে না নগরবাসীর।দেশের দ্বিতীয় প্রাণকেন্দ্র হলেও এ শহরের যানযট পরিস্থিতির দিন দিন চরম অবনতি হচ্ছে। রাস্তার খোড়াখুড়িতে দীর্ঘ যানজটের কবলে পরে সড়কে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে ছিল শত শত যানবাহন। নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোতে সকাল থেকে দেখা গেছে তীব্র যানজট।এতে অফিসগামী কর্মজীবী মানুষদের ঘন্টার পর ঘন্টা সড়কে অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে শীতের প্রকোপ।বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এ যানজট তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে। এর ফলে প্রধান সড়ক ছাড়িয়ে যানজটের প্রভাব পড়েছে শহরের বিভিন্ন অলি-গলিতে।নগরীতে নিউ মার্কেট,বদ্দারহাট চাক্তাই খাতুনগঞ্জ, কোরবাণীগঞ্জ ,চকবাজার,টাইগারপাস,দেওয়ানহাট,আনন্দরকিন্না ওভারব্রীজ,পাথরঘাটা ,টেরিবাজার ,এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানের দীর্ঘ যানজটের কবলে চট্টগ্রাম নগরী মূলত স্তব্ধ হয়ে পড়ে।এতে তীব্র যানবাহনের ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা ।হঠাৎ গত কয়েকদিন যাবৎ বিভিন্ন এলাকায় যানজট সৃষ্টি হচ্ছে এ যানজট নিরসনের জন্য পাশের অফিস পারা সমূহের গাড়ি পার্কিং ও ফুটপাত ধরে অবৈধ স্থাপনা জন্য দায়ী করছেন ভুক্তভোগী জনসাধারণ।

সরেজমিন ঘুরে দেখা,দিনরাত তীব্র যানজট লেগেই থাকে। যানজট নগরবাসীর কাছে সবচেয়ে দুর্ভোগের প্রধান কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। নগরীর ভেতর যানজট নিয়ে বলতে গেলে ব্যস্ততম এই রাস্তার পাশেই লাইন ধরে রাখা হয়েছে ট্রাকগুলো মালমাল উঠানামার জন্য ।এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কারো নজরদারি না থাকায় যানজটের ভোগান্তিতে পড়তে হয় নগরবাসীদের।এ যানজট স্থায়ী না হলেও গতি কম থাকায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা বিভিন্ন যানবাহনের যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়।ভোগান্তির কথা জানিয়েছেন ভুক্তভোগী গাড়ির চালক ও যাত্রীরা।শহরের মার্কেটগুলো ছিল খোলা, সেখানে নারী পুরুষ এমনকি শিশুদের ভিড়ও ছিল চোখে পড়ার মতো। বিভিন্ন মার্কেট মালিকদের দাবি তারা পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই মার্কেট খুলেছেন, তবে তা সঠিকভাবে পালন করতে দেখা যায়নি দোকানি কিংবা ক্রেতাদের।
যানজটে থাকা পিকআপ ও ট্রাকের চালকারা বলেন, আমরা মালামাল নিয়ে বের হয়েছি। কিন্তু শহরের যানজট দেখে আমরাও বিস্মিত।সড়কগুলো প্রশস্ত করা না হলে আগামী দিনগুলোতে নগরীতে যান চলাচল অচল হয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করছেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।এছাড়া রাস্তার খোড়াখুড়িতে তীব্র যানজটের কবলে পড়েছেন জনসাধারণ পথও যাত্রীরা।