আওয়ামী লীগ সরকারের এক যুগ পূর্তিতে ছাত্রলীগের শীতবস্ত্র বিতরণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকারের ধারাবাহিকভাবে সরকার পরিচালনার এক যুগ পূর্তিতে দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেছে ছাত্রলীগ।বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে ‘আর্ত মানবতার সেবায় দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রীর বিতরণ কার্যক্রম’ অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয়ের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান, বিশেষ অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক সম্পাদক ইমরান জমাদ্দার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী জানান,জয় এবং লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে কৃষকের ধান কেটে খাদ্য সঙ্কট দুর করাসহ বাংলাদেশ ছাত্রলীগ যেভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে সেটা সাধারণ মানুষের মনে দাগ কেটেছে। প্রমাণিত হয়েছে যে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সাত কোটি মানুষকে ডাটাবেজের আওতায় এনে আমরা মানবিক সহায়তা পোঁছে দিয়েছি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমরা মানুষের পাশে আছি এবং আজীবন থাকব।’

আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী বলেন, ‘ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের দেশের জন্য কাজ করে যেতে হবে। শুধু মিছিল-মিটিং করলে হবে না। মানুষের বিপদে আপদে, সুখে-দুঃখে তাদের পাশে দাঁড়াতে হবে। মানুষকে ভালোবাসাতে হবে। বঙ্গবন্ধু ভালোবাসা দিয়ে বাংলার মানুষের মন জয় করেছিলেন। আমাদেরকেও ভালোবাসা দিয়ে তাদের মন জয় করতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ করোনা মোকাবিলায় অনেক উন্নত দেশের তুলনায় বেশি সাফল্য দেখিয়েছে। আজ বাংলাদেশ জিডিপির প্রবৃদ্ধি, মাথাপিছু আয় এবং উন্নয়নের বিভিন্ন সূচকে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত, পাকিস্তানকেও ছাড়িয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ এখন সারা পৃথিবীতে উন্নয়নের রোল মডেল। এসব কিছুই শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণে সম্ভব হয়েছে।’
বৈশ্বিক মহামারী করোনা বাংলাদেশও সমস্যা সৃষ্টি করেছে। উন্নত দেশ নানা সুবিধা থাকা স্বত্বেও করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে। উন্নয়নশীল বাংলাদেশে শুধু মাত্র শেখ হাসিনার মেধা ও দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে করোনাকে আমরা সহনশীল রাখতে পেরেছি। জাতিসংঘের বর্তমান মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় বিশ্বকে বাংলাদেশ থেকে শিখতে হবে। এটা আমাদের জন্য বিরাট সম্মান ও গৌরবের।’

সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সারাদেশে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা প্রাকৃতিক দুর্যোগে, ঘূর্ণিঝড়ে দুর্যোগ কবলিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। করোনায় শ্রমিক সংকটে সারাদেশে কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছে। জাতির পিতার আদর্শ ধারণ করে দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নত সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ছাত্রলীগ কাজ করে যাচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখন বিএনপি-জামাত, সাম্প্রদায়িক প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী দেশকে অস্থিতিশীল করতে গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। আজকে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণেই বাংলাদেশ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল, বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে।’

এছাড়াও বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকারের ধারাবাহিকভাবে সরকার পরিচালনার এক যুগ পূর্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্থ ও দীর্ঘ জীবন এবং দেশের মানুষের সার্বিক মঙ্গল কামনায় বাদ যোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল এবং রাত ৮ টায় জগন্নাথ হল উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা সভার আয়োজন করা হয়।