রুহিয়ায় পাকা সড়কের বেহাল দশা দ্রুত সংস্করণের দাবী এলাকাবাসীর

মোঃ আব্দুল কাদের জিলানী ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা রুহিয়া থানা এলাকায় রুহিয়া পুকুরপাড় থেকে সেনিহাড়ী ও কর্ণফুলী থেকে চৌরঙ্গী (বাদিয়া) মার্কেট রাস্তা দুটি বেহাল দশায় রয়েছে। ফলে পাকা সড়কে সাধারণ মানুষ ও যানবাহন চলাচলে চরম দূভোর্গে রয়েছে এলাকাবাসী।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রুহিয়া কর্ণফুলী থেকে বাদিয়া মার্কেট প্রায় ২কিলোমিটার ও রুহিয়া পুকুরপাড় থেকে সেনিহাড়ী প্রায় ২ কিলোমিটার পাকা সড়ক রয়েছে। সড়ক দু’টিতে প্রতিদিন অনেক গাড়ি চলাচল করে। কিন্তু পাকা সড়কটি সংস্কার নেই দীর্ঘদিন থেকে। সড়কের মাঝে মাঝে পিচ উঠে গিয়ে ছোটবড় অনেক খানা-খন্দে পরিণত হয়েছে। সেই সাথে অবৈধ ভাবে মাহেন্দ্র গাড়ী দিয়ে মাটি কাটা-কাটি করায় পাকা সড়ক দু’টি দু’ধার ভেঙে গিয়ে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে । যার ফলে প্রায় ঘটছে দুর্ঘটনা।
এই বিষয়ে সেনিহাড়ীর মিলন, রুহিয়ার রাসেল ও বাদিয়া মার্কেট এর আইজুল সহ একাধীক ব্যক্তিরা জানান, প্রতিদিন এ রাস্তা দিয়ে ট্রাক, ট্রাক্টর, ভটভটি, অটোরিকশা, ভ্যান, বাইসাইকেল, মোটরবাইকসহ অসংখ্য যানবাহন চলাচল করে। ঝুঁকিপূর্ণ এ রাস্তায় চলাচল করতে গিয়ে অনেকে দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে।এ অবস্থায় সড়কটি দ্রুত সংস্কার না করলে ভবিষৎতে আরো বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে।

১নং রুহিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল হক বাবু জানান, আমি রাস্তা সংস্করণের জন্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের জানিয়েছি। আশা করি খুব শীঘ্রই রাস্তার মেরামতের কাজ শুরু হবে।
উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী অফিসার ইসমাইল হোসেন গনমাধ্যামকে জানান, স্থানীয় কিছু মহেন্দ্র গাড়ি, টলি মাটি কাটার জন্য অবৈধ ভাবে উঠানামা করে রাস্তা গুলো নষ্ট করছে। এ বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যানদের বলা রয়েছে। যদি কেউ মাটি কাটার জন্য রাস্তা ভেঙ্গে স্লিপিং তৈরী করে রাস্তা নষ্ট করেন সেটা আমাদের জানালে আমরা আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ করব।