সিএম পির ১৬ টি থানায় একযোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালিত

চট্টগ্রামে নানা আয়োজনেঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে ও বাংলাদেশ এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ প্রাপ্তি উপলক্ষে সমগ্র বাংলাদেশের সকল থানার ন্যায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের ১৬ টি থানায় একযোগে আনন্দ উদযাপন ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এ উপলক্ষে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের পাঁচলাইশ থানার উদ্যোগে নগরীর দি কিং অব চিটাগাং এ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর। সভায় স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ও ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ৫০ বছর পূর্তিতে বাংলাদেশের এই অর্থনৈতিক সুবিশাল অর্জনের জন্য সিএমপি কমিশনার ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন, ২০০৯ সালে সারা বিশ্বে একটি অর্থনৈতিক মন্দা সত্ত্বেও আমাদের জিডিপির পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এই করোনাকালীন সময়ে পৃথিবীতে যে চারটি দেশের জিডিপি বৃদ্ধি পেয়েছে, বাংলাদেশ তার মধ্যে একটি। যদি স্থিতিশীলতা বজায় থাকে, তাহলে উন্নয়নের এই ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে।
তিনি আরও বলেন, মার্চ মাস আবেগের মাস। এই মাসে আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছি। আমাদের একটি স্বপ্ন আছে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশের। এই উন্নত বাংলাদেশের জন্য আমাদের নিজেদের তৈরী করতে হবে।
সিএমপি কমিশনার বলেন, আমাদের রয়েছে অত্যন্ত গর্ব করার মত সংস্কৃতি, ভাষা, সাহিত্য, কৃষি, সর্বোপরি মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস। এর সাথে যুক্ত হয়েছে অর্থনৈতিক সামর্থ্য। আমরা স্বপ্ন দেখি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আগামী দিনের বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে উজ্জ্বল উদাহরণ হয়ে থাকবে। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রধান আলোচক এসআইবিএল চেয়ারম্যান অধ্যাপক আনোয়ারুল আজিম আরিফ, ডিসি নর্থ বিজয় বসাক, মহানগর কমিউনিটি পুলিশ্‌িং কমিটির সদস্য সচিব অহিদ সিরাজ স্বপন, পাঁচলাইশ মডেল থানার ওসি আবুল কাশেম ভূঁইয়া, ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোরশেদ আলম, মহিলা কাউন্সিলর জেসমিন পারভিন জেসি প্রমুখ।