লোহাগাড়ায় অবৈধ ৪ টি ইটভাটা গুড়িয়ে দিলো প্রশাসন

আজ মঙ্গলবার (৯মার্চ) চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলায় জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের যৌথ অভিযানে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা আরো ৪টি ইটভাটা গুড়িয়ে দেয়া হয়। একইসাথে এসব ইটভাটার পরবর্তী কার্যক্রম বন্ধ রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়।আজ উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে পদুয়া নাওঘাটা এলাকায় নুরুল ইসলাম কোম্পানীর মালিকানাধীন জেবিএম ব্রিকস, লেয়াকত আলী মেম্বারের মালিকানাধীন পিপিএম, পদুয়া আলী সিকদার পাড়া সংলগ্ন নুরুল ইসলাম সিকদারের মালিকানাধীন এমআরবি ব্রিকস ও পদুয়া তেওয়ারীখীল এলাকার বাদশা কোম্পানীর মালিকানাধীন এএইচবি ব্রিকস সম্পূর্ণভাবে গুড়িয়ে দেয়া হয়।

অভিযানে নেতৃত্বে দেন পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক মো. মফিদুল ইসলাম, পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মহানগরের পরিচালক নুরুল্লাহ নুরী ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী। এসময় লোহাগাড়া থানার ওসি জাকের হোসাইন মাহমুদ, পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের পরিদর্শক নুর হোসাইন সজিব, ফায়ার সার্ভিস, র‌্যাব-৭, পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মহানগরের পরিচালক নুরুল্লাহ নুরী জানান, মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশে সকল অবৈধ ইটভাটায় অভিযান চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসনের লাইসেন্স না থাকায় লোহাগাড়ার পদুয়ায় ৪টি ইটভাটা ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেওয়া হয়। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।