নারায়ণগঞ্জে গ্যাসের আগুনে দগ্ধ ৫

নারায়ণগঞ্জ বন্দরে গ্যাসের সাহায্যে পানির পাইপ লাইন পরিস্কার ও মেরামতকালে গ্যাসের আগুনে দুই মিস্ত্রীসহ ৫ জন দগ্ধ হয়েছেন। এদের মধ্যে ৪ জনকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।শনিবার নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের বন্দর থানার ২৪নং ওয়ার্ডের পূর্ব নোয়াদ্দা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে আগুনে বাড়ি ঘরের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানায় পুলিশ। অগ্নিদগ্ধরা হলেন- মহসিন (৪০), মনির হোসেন (৫৫), সোলাইমান (৫০), নাজিমউদ্দিন (৫৫) ও মাহফুজ (১৪)।

বন্দর থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা ও এলাকাবাসী জানান, বন্দরের পূর্ব নোয়াদ্দা এলাকার আবদুল আজিজের ছেলে সোলাইমানের বাড়ির পানি সরবরাহের পাইপলাইন আয়রন জমে সরু হয়ে যায়। সরু পাইপ দিয়ে পানি না আসায় সরবরাহ বাড়ানোর জন্য শনিবার মহসিন ও মনির নামে দুই মিস্ত্রীকে নিয়ে আসেন সোলাইমান। মিস্ত্রীরা পাইপের জ্যাম সরাতে হাওয়ার মেশিন ব্যবহার না করে গ্যাসের প্রেসার ব্যবহারের চেষ্টা করেন। তারা অন্য একটি পাইপের মাধ্যমে রাইজার থেকে গ্যাস সংযোগ নিয়ে পানির পাইপে চাপ প্রয়োগ করে জমে থাকা আবর্জনা পরিস্কার করতে থাকেন।

এ সময় পাইপের লিকেজ দিয়ে নির্গত গ্যাস ঘরে জমতে থাকে। এরপর পাশের গ্যাসের চুলার আগুন ঘরে জমে থাকা গ্যাসের সংস্পর্শে আসতেই আগুনের লেলিহান শিখা ঘরের চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এতে কিছু বুঝে ওঠার আগেই দুই মিস্ত্রীসহ ৫ জন দগ্ধ হন।

এলাকাবাসী দগ্ধদের উদ্ধার করে প্রথমে বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে ৪ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়া হয়। মাহফুজ নামে এক কিশোরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়।