» সার্জিক্যাল মাস্কের পাশাপাশি কাপড়ের তৈরি মাস্ক জনপ্রিয় হয়ে উঠছে

স্বর্ণালী প্রিয়া ডেক্সঃ » মাস্ক ব্যবহারের শুরুটা হয়েছিল প্রয়োজন থেকে। মাস্কের নকশা তখন মুখ্য বিষয় ছিল না। তবে এখন মাস্ক করোনা সংক্রমণ থেকে সুরক্ষার পাশাপাশি মানুষের সৌন্দর্য প্রকাশের মাধ্যমও হয়ে উঠছে। ধীরে ধীরে মাস্ক পরিণত হচ্ছে ফ্যাশনের অনুষঙ্গে। এ ছাড়া দেশে-বিদেশে প্রতিবাদী আন্দোলনেও মাস্কের ব্যবহার দেখা যাচ্ছে।সার্জিক্যাল মাস্কের পাশাপাশি কাপড়ের তৈরি মাস্ক জনপ্রিয় হয়ে উঠছে,আপনি নিজেই ঘরে বসে আপনার নিজের জন্য এই মাস্ক বানানোর চেষ্টা করতে পারেন একবারে সহজ পদ্ধতিতে পরিবারের সবার জন্য ঘরেই তৈরি করতে পারেন কাপড়ের মাস্ক। এটি বারবার ধুয়ে পরিস্কার করা যাবে।মাস্ক বানানোর নিয়ম


বাধ্যতামূলক করা হয়েছে ফেসমাস্ক পরা।গুণগত মানের পাশাপাশি অনেকে এখন মাস্কের নকশার দিকে মনোযোগ দিচ্ছেন। সার্জিক্যাল মাস্কের পাশাপাশি কাপড়ের তৈরি মাস্ক জনপ্রিয় হয়েছে। কারণ, কাপড়ের মাস্ক ধুয়ে বারবার ব্যবহার করা যায়। তা ছাড়া এগুলোতে নানা রকম নকশাও ফুটিয়ে তোলা যায়। তাঁর আবেগ, অনুভূতি, ভালোবাসা আছে। মাস্কের মাধ্যমে মানুষের রুচি ও অভিব্যক্তি বোঝা যায়। তাই ব্যক্তিত্বের সঙ্গে যাবে এমন নকশা বেছে নিচ্ছেন অনেকে। চিত্রকর্ম ভালোবাসেন, এমন মানুষ সেই মাস্কগুলোই হয়তো কিনছেন, যেগুলোতে বিখ্যাত চিত্রকর্ম তুলে ধরা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে এখন মানুষের মধ্যে আতঙ্ক–ভয় কাজ করছে। এমন পরিস্থিতিতে মাস্কে রংবেরঙের নকশার ব্যবহার কিছুটা বৈচিত্র্য আনছে জীবনে।

চিকিৎসকের জন্য নির্দিষ্ট ফেসমাস্ক বা শ্বাস নিতে পারা যায় এমন শক্তভাবে আঁটা মুখের ঢাকা স্বাস্থ্যকর্মী এবং বৃদ্ধ নিবাসে যারা বয়স্ক ও অসুস্থদের দেখাশোনা করে তাদের জন্য রাখার কথা বলা হচ্ছে।মাস্ক কোভিড-১৯ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া বন্ধে সহায়তা করে। তবে অনেক বাবা-মাই লক্ষ্য করে থাকবেন যে শিশুদের ক্ষেত্রে মাস্কের ব্যবহার শুরু করাটা মোটেও সহজ নয়।