লকডাউনে নবম দিনে রাজধানীতে গণপরিবহন ছাড়া সব ধরনের যানবাহনের চাপ

আজ বৃহস্পতিবার, (২২ এপ্রিল)দেশে চলমান বিধিনিষেধের নবম দিনে রাজধানীর সড়কে গণপরিবহন ছাড়া সব ধরনের যানবাহনের চাপ বেড়েছে। দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে বলেই রাস্তায় বেরিয়েছেন বলছেন রিকশা ও অটোরিকশার চালকেরা।
সকালের দিকে চেকপোস্টগুলোতে পুলিশের তল্লাশি না থাকায় অবাধে চলাচল করেছে ব্যক্তিগত গাড়ি, সিএনজি অটোরিকশা ও রিকশা। পরে চেকপোস্টে পুলিশ তল্লাশি শুরু করলে অনেক জায়গায় দেখা দেয় যানজট।
জরুরি সেবা খাতের অনেক কর্মী প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব পরিবহন না থাকায় পায়ে হেঁটে গন্তব্যে যেতে দেখা গেছে।

রাস্তায় রিকশা উল্টিয়ে রেখেছে পুলিশ। তবে রিকশাচালকেরা বলছেন, পেটের ক্ষুধা মেটাতেই পথে নামতে বাধ্য হয়েছেন তারা। কোন আর্থিক সহযোগিতা না দিয়ে গরীবের ওপর এমন কঠোর হওয়ায় ক্ষোভ জানান তারা।
তারা বলেন, আমাদের পরিবার নিয়ে চলতে হয়। আয় উপার্জন না করলে তো আমরা না খেয়েই মরে যেতে হবে। পুলিশ প্রাইভেট কারের কাছে আইন দেখাতে পারে না শুধু আমাদের বেলাতেই বেশি আইনটা প্রয়োগ হয়। যত আইন সব গরিবের জন্য।
দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে বলেই বাধ্য হয়ে রাস্তায় বেরিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সিএনজি অটোরিকশার চালকেরা।
এদিকে নিজস্ব গাড়ি নিয়ে বের হওয়া কেউ উপযুক্ত কারণ দেখালে মামলা দিয়েছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, মানুষ অনেক ধরণের মিথ্যা অজুহাত দিয়েও রাস্তায় বের হচ্ছে। তার উপর তারা কোন ধরণের কোন স্বাস্থবিধিও মানছে না। তাদের বিরুদ্ধেই আমরা আইন অনুযায়ি ব্যবস্থা নিচ্ছি। বেলা বাড়ার সাথে সাথে যানচলাচল আরও বেড়ে যায়।