কোভিড-১৯ সংক্রমণ ঠেকাতে মালয়েশিয়ায় লকডাউন ঘোষণা

আজ সোমবার(১০ মে )তৃতীয় দফা কোভিড-১৯ এর ধারাবাহিক সংক্রমণ ঠেকাতে এবার পুরো মালয়েশিয়ায় মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (এমসিও) নামে লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের সঙ্গে বৈঠক শেষে সোমবার এক বিবৃতিতে ১২ মে থেকে ৭ জুন পর্যন্ত এমসিও চালুর এ ঘোষণা দেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তৃতীয় দফার এ সংক্রমণ প্রথম ও দ্বিতীয় দফার চেয়ে আরও বেশি ভয়ানক। সবকিছু চালু রেখে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এক রকম অসম্ভব। মানুষকে ঘরে থাকতে বাধ্য করা ছাড়া করোনা সংক্রমণ রোধ সম্ভব নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

নতুন এ ঘোষণা অনুযায়ী অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া জেলা বা আন্তঃরাজ্য ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। বিয়ে, অনুষ্ঠান এমনকি সরকারি বা ব্যক্তিগত আয়োজনে গণজমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যেকোনো ধরনের সেমিনার ও সভার অনুমতি বাতিল করা হয়েছে। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিয়ের অনুষ্ঠানের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

ব্যক্তিগত গাড়িতে ৩ জনের চলাচলের অনুমতি দেয়া হয়েছে। প্রত্যেক অফিসের ৩০ শতাংশ কর্মচারীকে কাজ করার অনুমতি দেয়া হয়েছে। ঈদ উপলক্ষে কোনও ধরনের জমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৫০ জনের মধ্যে সীমাবদ্ধ থেকে মসজিদ বা সুরাও’তে ঈদের নামাজ আদায়ের অনুমতি দেয়া হয়েছে। এছাড়া ক্রীড়া, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

উল্লেখ্য, সোমবারও দেশটিতে ৩ হাজার ৮০৭ জন করোনার রোগী সংক্রমিত হয়েছে। মারা গেছেন ১৭ জন। আর সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছে ৩ হাজার ৪৫৪ জন। করোনা মোকাবিলায় গেলো বছরের মার্চ থেকে কঠোর পদক্ষেপ নিয়ে আসছে মালয়েশিয়া। তবে সাম্প্রতিক সময়ে সংক্রমণ অধিক বৃদ্ধি পাওয়ায় আবারও লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিলো দেশটি।