অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সামান্যতম গাফিলতি থাকলে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

শনিবার (১০ জুলাই) দুপুর আড়াইটায় রুপগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ হাসেম ফুড এন্ড বেভারেজের কারখানা পরিদর্শন শেষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
রুপগঞ্জে সেজান ফুড এন্ড বেভারেজ কারখানায় আগুনের ঘটনায় কারো যদি সামান্যতম গাফিলতি থাকে তাহলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেন, কারখানায় আগুনের ঘটনায় যে-ই দায়ি থাকুক না কেন তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ ঘটনায় সারাদেশ স্তব্ধ। প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ও চার ছেলেসহ আট শীর্ষ কর্মকর্তাকে আগুনের ঘটনায় রুপগঞ্জ থানায় দায়ের করা হত্যা মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের গাফিলতি থাকলে কোন ছাড় নয়। আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তিনি আরো বলেন, হাসেম ফুড প্রডাক্টে কতজন লোক কাজ করছিলো, তারা কি করছিলো তা তদন্তে বের হয়ে আসবে। তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তের পরে আমরা বলতে পারবো কি ঘটেছে। যা-ই ঘটেছে এটা অত্যন্ত হৃদয় বিদারক ঘটনা। যারা মারা গেছেন তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করছি।

মন্ত্রী বলেন, সরকারিভাবে যে সহযোগিতা করার কথা ছিলো জেলা প্রশাসক (ডিসি) করেছেন। আমরা এরপরেও আরো কি করা যায় তা দেখবো।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, একটা দূর্ঘটনা ঘটেছে। ৫২ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এঘটনায় তদন্ত হবে, যারা সামান্যতম জড়িত তাদের আইন অনুযায়ী বিচার হবে। প্রতিষ্ঠানে শিশু শ্রম প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এখানে কোনো শিশু শ্রমিক ছিলো কিনা, থাকলে কয়জন শিশু শ্রমিক এখানে আছে, সে বিষয়ে তদন্ত রিপোর্টের পর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ, ডিসি, ইউএনও তাৎক্ষনিকভাবে ঘটনাস্থলে এসেছে। তাৎক্ষনিকভাবে তারা অনেককে জীবিত উদ্ধারও করেছে। আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে তাদের যথেষ্ট বেগ পেতে হয়েছে আপনারা দেখেছেন। এখানে ভবন নির্মাণে কোনো ত্রুটি ছিলো কিনা, শ্রমিকদের পরিচালনার ত্রুটি থাকতে পারে, শিশু শ্রমিক ছিলো কিনা এসব তদন্তের পরে জানা যাবে।’