ডাঃ এম তাহের খাঁন, আজাদ পর্ষদ পূর্ণ প্যানেল বিজয়

ডাঃ এম তাহের খাঁন, আজাদ পর্ষদ পূর্ণ প্যানেল বিজয়
চট্টগ্রামের বহুল আলোচিত মা ও শিশু হাসপাতালের পরিচালনা পর্ষদ উৎসবমুখর পরিবেশে শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে । সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরামহীনভাবে চলে ভোটগ্রহণ। নির্বাচনে প্রফেসর ডাঃ এম তাহের খাঁন সভাপতি, সৈয়দ মোহাম্মদ মোরশেদ হোসেন সহ সভাপতি , মোঃ রেজাউল করিম আজাদ জেনারেল সেক্রেটারী সহ পূর্ণ প্যানেল বিজয় লাভ করায় নিরন্তর শুভেচ্ছা। ও অভিনন্দন শিশু হাসপাতাল পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে প্রফেসর ডা. এম এ তাহের খান-সৈয়দ মো. মোরশেদ হোসেন-মোহাম্মদ রেজাউল করিম আজাদ-অধ্যক্ষ ড. লায়ন মোহাম্মদ সানাউল্লাহ পরিষদ বিপুল ভোটের ব্যবধানে প্রায় পূর্ণ প্যানেলে বিজয়ী হন। প্রতিদ্বন্দ্বী প্যানেল থেকে শুধু একজন সদস্য নির্বাচিত হয়েছে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান নির্বাচনের ফল ঘোষণা করেন।।দুটি প্যানেল থেকে ৫২ জন এবং স্বতন্ত্র ৩ জন মিলে মোট ৫৫ জন এ নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করেন। ভোট নিয়ে ক’দিন ধরে প্যানেল দুটি প্রার্থী ও সমর্থকদের ব্যাপক প্রচার ছিল। পাল্টাপাল্টি প্রচারে ভোটের আমেজ তুঙ্গে উঠে। তবে শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয়েছে এ নির্বাচন।

চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের এই নির্বাচনে ভোটার ৯ হাজার ৭২৪ জন। তারা সকলেই লাইফ মেম্বার। প্রতি ভোটার ২০টি ভোট প্রদানের মাধ্যমে নির্বাচিত করেন সভাপতিসহ ২০ জন কর্মকর্তা। অপরদিকে ৩২৩ জন ডোনার মেম্বারে ভোটে নির্বাচিত হবেন পরিচালনা পর্ষদের দুজন ডোনার সদস্য। তবে ডোনার ক্যাটাগরি থেকে এর মধ্যে ডাঃ এম এ তাহের খান-রেজাউল করিম আজাদ প্যানেলের ভাইস প্রেসিডেন্ট (ডোনার) এবং জয়েন্ট জেনারেল সেক্রেটারি (ডোনার) বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছেন। শনিবার হাসপাতালের মহিলা হোস্টেলে স্থাপিত ৩১টি বুথে ভোটগ্রহণ করা হয়। চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের ভোটার বেশি হওয়ায় পুরো দিন বজায় ছিল অনেক বড় এক নির্বাচনের আমেজ।