ডায়াবেটিস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে সচেতনতা সৃষ্টিতে সহায়তা অব্যাহত থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

ব্রেকিং নিউজ » (১৪ নভেম্বর) ‘বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস’আজ

আজ রোববার (১৪ নভেম্বর) প্রতি বছরের মতো এবারও বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির উদ্যোগে ‘বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসে’নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।বাংলাদেশসহ প্রায় ১৭০টি দেশে দিবসটি পালিত হয়। ডায়াবেটিস দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য-‘ডায়াবেটিস সেবা নিতে আর দেরি নয়’।এক জরিপে দেখা গেছে, দেশের ২৫ দশমিক ৬ শতাংশ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। এ হিসাবে মোট জনগোষ্ঠীর এক-চতুর্থাংশেরও বেশি মানুষ ডায়াবেটিস রোগটি বহন করছেন। চলমান বৈশ্বিক করোনাভাইরাস মহামারি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য আরও ঝুঁকি সৃষ্টি করেছে।বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস’ উপলক্ষে প্রধানমনত্রী বাণীতে বলেন বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির উদ্যোগে ‘বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস’ পালিত হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য- ‘ডায়াবেটিস সেবা নিতে আর দেরি নয়’ যথার্থ হয়েছে বলে আমি মনে করি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার সব সময় জনগণের সুস্বাস্থ্য রক্ষায় নানা কর্মসূচি নিয়ে আসছে। আমরা জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। একটি গণমুখী স্বাস্থ্যনীতি প্রণয়ন করে তা বাস্তবায়নে আমরা কাজ করছি। সারাদেশের সব হাসপাতালে শয্যা সংখ্যা বাড়ানোর পাশাপাশি নতুন নতুন মেডিকেল কলেজ, নার্সিং কলেজ, নার্সিং ইনস্টিটিউট ও মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট ট্রেনিং স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এরই মধ্যে তৃণমূল পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা বিস্তৃত করতে দেশব্যাপী সব উপজেলায় ও ইউনিয়ন পর্যায়ে কমিউনিটি ক্লিনিক ও স্বাস্থ্যকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। ডায়াবেটিস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে সরকারের সহায়তা অব্যাহত থাকবে। আমি ‘বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২১’ উপলক্ষে গৃহীত সব কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করি।