শহীদ মিনার এবং পাহাড়তলী বধ্যভূমিতে বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ

শহীদ মিনার এবং পাহাড়তলী বধ্যভূমিতে বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ
মোমের আলোয় আলোকিত ফুলে ফুলে ভরে উঠেছে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের বধ্যভূমি।চট্টগ্রামে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এবং পাহাড়তলী বধ্যভূমিতে বুদ্ধিজীবীদের স্মরণে বিভিন্ন পেশাজীবী, সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ মঙ্গলবার প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারের বেদীতে ফুল দিয়ে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ করেন।সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে উৎখাত করার প্রত্যয়ে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ করছে জাতি।মহানগর আওয়ামী লীগ : শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা গতকাল সকাল ১০টায় থিয়েটার ইনস্টিটিউট হল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতির বক্তব্যে সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বুদ্ধিজীবীরা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। স্বাধীনতার প্রাক্কালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী জাতির মেধাবী সন্তানদের হত্যা করে এই দেশকে পেছনে ঠেলে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন পূরণ হয়নি।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন। মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন মহানগর সহসভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, খোরশেদ আলম সুজন, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, উপদেষ্টা শেখ মো. ইসহাক, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সায়মুল চৌধুরী, নির্বাহী সদস্য মোরশেদ আকতার চৌধুরী, মহানগর যুবলীগের দেলোয়ার হোসেন খোকা, থানা আওয়ামী লীগের হাজী সুলতান আহমেদ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আমিনুল হক রঞ্জু।
উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, শফর আলী, নোমান আল মাহমুদ, শফিকুল ইসলাম ফারুক, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, আহমেদুর রহমান ছিদ্দিকী, হাজী মো. হোসেন, হাজী জহুর আহমেদ, আবু তাহের, আবদুল আহাদ, নির্বাহী সদস্য আবুল মনছুর, সৈয়দ আমিনুল হক, মোহব্বত আলী খান, বখতেয়র উদ্দিন খান, অ্যাডভোকেট কামাল উদ্দিন আহমেদ, ইঞ্জিনিয়ার বিজয় কিষাণ চৌধুরী, জাফর আলম চৌধুরী, হাজী বেলাল আহমেদ প্রমুখ।