ভারতে ১১২ মুসলিম নারীকে বিক্রির জন্য তোলা হলো নিলামে

ভারতে ১১২ মুসলিম নারীকে বিক্রির জন্য তোলা হলো নিলামে
ভারতশাসিত কাশ্মীরের সাংবাদিক কুরাতুলাইন রেহবার। ২০২২ সালের প্রথম দিন শনিবার দেখতে পান, একটি অ্যাপে তার ছবি দিয়ে তাকে বিক্রির জন্য নিলামে তোলা হয়েছে। তার অনুমতি ছাড়াই সেই ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। শুধু রেহবার নন, এমন শতাধিক নারীর ছবি দিয়ে অনলাইনে তাদের নিলামে তোলা হয়েছে। নাবিয়া খান নামের এক নারী টুইটে বলেন, নতুন বছরে এমন অন্তত ১১২ জন জন মুসলিম নারীর ছবি ওই অ্যাপে প্রকাশ করা হয়েছে। ভারতে এভাবেই মুসলিম নারীকের ছবি ‘বুল্লি বাই’ নামের অ্যাপটিতে প্রকাশ করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে দিল্লি পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। দিল্লি পুলিশের বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, মুসলিম নারীদের হয়রানি ও অপমান করতে এই অ্যাপটি চালু করা হয়েছে। পুলিশের কাছে এমন অভিযোগ করেছেন নারী সাংবাদিক। পুলিশকে ওই নারী সাংবাদিক বলেন, ‘১ জানুয়ারি বুল্লি বাই ওয়েবসাইটে আমার বিকৃত একটি ছবি দেখতে পাই। তা দেখে আমি অবাক হয়ে যাই। অশ্লীল সেই ছবিটি অগ্রহণযোগ্য। আমার মতো স্বাধীনচেতা নারী সাংবাদিকদের হয়রানি করার উদ্দেশ্যেই এই কাজ করা। ’ এরই মধ্যে ‘বুল্লি বাই’ অ্যাপটি বন্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতের তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়। মুসলিম নারীর ছবি এভাবে প্রকাশ করার বিষয়ে কংগ্রেস সংসদ সদস্য শশী থারুর টুইটে লেখেন, ‘অনলাইনে কোনো মানুষকে বিক্রি করার বিজ্ঞাপন দেওয়া আইনত অপরাধ। ’ মুসলিম নারীদের বিক্রি করতে ‘বুল্লি বাই’ নামের অনলাইন অ্যাপটি সম্প্রতি তৈরি করা হয়েছিল। এর আগে একই ধরনের একটি অ্যাপ ব্লক করা হয় ভারতে। অ্যাপটির নাম ছিল ‘সুল্লি ডিলস’। ‘বুল্লি বাই’ বা এই ধরনের অন্য অ্যাপে আক্ষরিক অর্থে নারীদের বিক্রি করা হয় না। মুসলিম নারীদের হয়রানি করতেই এটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে।