ঝড়ে লণ্ডভণ্ড নেত্রকোনার কলমাকান্দা

ঝড়ে লণ্ডভণ্ড নেত্রকোনার কলমাকান্দা
হঠাৎ ঝোড়ো হাওয়া ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে নেত্রকোনার কলমাকান্দার বেশ কয়েকটি এলাকা।রবিবার ভোরে বৃষ্টির সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যায়। এ সময় শিলাবৃষ্টিও হয়েছে কয়েকটি এলাকায়। এতে ২০০ ঘর ভাঙার খবর পাওয়া গেছে। একই সঙ্গে ফসল ও গাছপালার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

জানা যায়, রবিবার ভোরে কলমাকান্দার আটটি ইউনিয়নে বৃষ্টির সঙ্গে ঝোড়ো বাতাস বয়ে যায়। এতে ২০০ ঘরবাড়ি ভেঙে গেছে উপজেলায়। একই সময়ে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙে এবং তার ছিঁড়ে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে উপজেলা। স্থানীয়রা জানায়, ঝড়ে প্রায় ৫০০ একর জমির আধাপাকা ধান ও ১০ একর সবজিক্ষেত নষ্ট হয়েছে।

নাজিরপুর এলাকার বাসিন্দা নজরুল ইসলাম বলেন, এই ঝড়ে তার দুটি ঘরের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। গাছপালাও ভেঙে ঘরের ওপর পড়েছে। বড়খাপন এলাকার মঞ্জুরুল হক জানান, তার একটি ঘরের চাল ধসে পড়ে বিদ্যুতের লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে তার ছিঁড়ে যায়।

কলমাকান্দা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) প্রকৌশলী রাশেদুজ্জামান বলেন, ঝড়ে বৈদ্যুতিক চারটি খুঁটি ভেঙে গেছে। ২৫টি এলাকায় বৈদ্যুতিক তার ছিঁড়ে লাইন নষ্ট হয়ে গেছে। বিদ্যুৎ সংযোগ চালুর কাজ করে যাচ্ছেন তারা।

কলমাকান্দা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ফারুক আহম্মেদ জানান, ঝড়ে ৩২১ একর বোরো ধান, আট একর করলা ও আড়াই একর শসাক্ষেতের ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করা হচ্ছে।সংবাদ bkagoj