ফিলিস্তিন-ইসরায়েল লড়াই তীব্রতর হচ্ছে

টানা চার দিন পেরিয়ে পঞ্চম দিনে গড়িয়েছে ফিলিস্তিন-ইসরায়েল যুদ্ধ। এত করে দীর্ঘ হচ্ছে হতাহতের সংখ্যা। বাড়ছে হামলা-পাল্টা হামলার পদক্ষেপও। দুপক্ষের পাল্টাপাল্টি হামলায় যুদ্ধ পরিস্থিতি প্রকট করছে। ক্রমেই দীর্ঘ হচ্ছে উভয়পক্ষের হতাহতের সংখ্যা।এরইমধ্যে যুদ্ধে উভপক্ষের অন্তত ২১০০ মানুষ নিহত হয়েছে। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, উভয়পক্ষের মধ্যে লড়াই তীব্রতর হচ্ছে। সৈন্যদের ওপর সকল প্রকারের বাধা-নিষেধ তুলে নেওয়া হয়েছে। এতে অন্তত ১২০০ ইসরায়েলি নিহত হয়েছেন। অন্যদিকে গাজায় হামলায় ৯০০ মানুষ নিহত হয়েছেন।তিনি বলেন, গাজার পরিবেশ এখন এমন পর্যায়ে পৌঁছে গেছে যে এটি আর আগের মতো হবে না।বিবিসি সূত্র বলছে, ক্রমেই যুদ্ধের পরিবেশ ভয়াবহ হয়ে উঠছে। ইসরায়েলের এক জেনারেল বলেন, যুদ্ধের সময় শিশুদেরও তাদের বেডরুমে হত্যা করা হচ্ছে। এমনকি সেনাদের শিরশ্ছেদ করা হচ্ছে।যুদ্ধের কারণে বৈদ্যুতিক বিপর্যয়ের মুখে পড়তে যাচ্ছে। এ উপত্যাকায় কোনোভাবে জ্বালানি ঢুকতে দিচ্ছে না ইসরায়েল।

এই সপ্তাহের যেকোনো সময় এখানকার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়তে পারে।

এদিকে যুদ্ধের মধ্যে ইসরায়েলে যাওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন। আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) দেশটিতে সফরে গিয়ে ইসরায়েলের সিনিয়র নেতাদের সাথে আলোচনা করবেন তিনি। গাজা উপত্যাকায় ইসরায়েলের বিমান হামলা চলমান থাকায় অঞ্চলের বেসামরিক লোকদের নিরাপত্তার জন্য কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করছে যুক্তরাষ্ট্র।

হোয়াইট হাউসের নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাকি সুলিভান বলেন, আমরা এখন এ বিষয়টির ওপর ফোকাস করছি। এ বিষয়ে আলোচনা চলছে।