ঘন কুয়াশা ও হিমেল হাওয়ায় ঝিরি ঝিরি বৃষ্টি

শনিবার (৩১ জানুয়ারি)চট্টগ্রামে সকাল থেকে ঘন কুয়াশা আর মেঘাচ্ছন্ন আকাশে মাঝে মধ্যে হিম বাতাস বইছে।। উত্তরের হিমেল হাওয়ায় কুয়াশা ও হিম বাতাসে বাড়ছে শীতের তীব্রতা। ফলে স্থবির হয়ে পড়েছে জীবনযাত্রা। এদিকে সকাল থেকে দেশের কয়েক বিভাগের কিছু জায়গায় গুড়িগুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। মৌলভীবাজার জেলায় বইছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। কয়দিন ধরে ৮ থেকে ১০ এর মধ্যে উঠানামা করছে তাপমাত্রা
যশোরে রাত থেকে ভোর পর্যন্ত ৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। মাঝে মধ্যে দমকা বাতাস সব মিলে এ এক অন্য ঋতু বৈচিত্রের খেলা। কিন্তু প্রকৃতিপ্রেমীরা বেশ উপভোগ করছেন কালের এই সময়টি। বিশেষ করে সকালের কুয়াশা আর কনকনে ঠান্ডা বাতাসে বেশ উপভোগ করছেন সাধারণ মানুষ।
শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে গোপালগঞ্জ, নওগা, মৌলভীবাজার ও ফেনী জেলার উপর দিয়ে। নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে ফসলের মাঠে।
ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় সকাল থেকে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হয় সন্ধ্যা নামার সাথে সাথে তাপমাত্রা কমতে থাকে। গ্রামের রাস্তাঘাট রাত ৮ টার মধ্যেই ফাঁকা হয়ে যায়। মাঝরাতে টুপ টুপ করে পড়ে নিশির শিশির ঢেকে যায় কুয়াশা। প্রকৃতির এই খামখেয়ালিপনা আচরণ লক্ষ্য করছেন সাধারণ মানুষ।