মাদক মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণের পর পরীমনির জামিন

মাদক মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণের পর পরীমনির জামিন
মাদক মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণের পর জামিন পেলেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। তবে, দেরিতে আদালতে উপস্থিত হওয়ায় তাকে সতর্ক করেন বিচারক। একই সঙ্গে মামলাটি বিচারিক আদালতে বদলির আদেশ দেন।

রাজধানীর বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা মামলায় হাজিরা দিতে রবিবার আদালতে হাজির হন পরীমনি। জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় বেলা আড়াইটায় আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন জানান পরীমনি। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত সিকদারের আদালত পরীমনিসহ তিন আসামির জামিন মঞ্জুর করেন। এ সময় সিআইডির দেয়া অভিযোগপত্র গ্রহণ করে মামলাটি বিচারিক আদালতে বদলির আদেশ দেয়া হয়।

আদালতের আদেশ অনুযায়ী আজ চিত্রনায়িকা পরীমনিসহ তিন আসামির জামিনের মেয়াদ শেষ হয়। সে অনুযায়ী বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পরীমনির পক্ষে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন জানান তার আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত। তবে, ঘন্টাখানেক পেরিয়ে গেলেও পরীমনি আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় তার অনুপস্থিতিতে শুনানি শুরু হয়। এ সময় পরীমনির আইনজীবীরা সময়ের আবেদন করলে আদালত বেলা আড়াইটায় শুনানির সময় ঠিক করেন। পরে বেলা সোয়া একটার দিকে আদালতে হাজির হন পরীমনি ও তার দুই সহযোগী দিপু ও কবির হোসেন। বেলা আড়াইটায় শুরু হয় শুনানি।

পরীমনি সময়মতো উপস্থিত না হওয়ায় আদালত তাকে সর্তক করেছেন বলেও জানান সরকারি কৌঁসুলী আবদুল্লাহ আবু। তবে যানজট থাকায় পরীমনি আদালতে আসতে দেরি হয়েছে বলে জানান তার আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত।

এদিন পরীমনির বিরুদ্ধে দেয়া মাদক মামলার অভিযোগপত্রের নকল কপির জন্য তার আইনজীবীরা আবেদন করলেও সেটি খারিজ করে দেন বিচারক।